Home / উপজেলা / পদোন্নতি পেয়ে প্রধান শিক্ষক হচ্ছেন সীতাকুণ্ডের ২২ শিক্ষক

পদোন্নতি পেয়ে প্রধান শিক্ষক হচ্ছেন সীতাকুণ্ডের ২২ শিক্ষক

সাপ্তাহিক সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

মহানগর ও উপজেলা মিলে চট্টগ্রামে চলতি দায়িত্বে থাকা ৬৩৪ জন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি পাচ্ছেন। সম্প্রতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্বে থাকা প্রধান শিক্ষকের স্থানীকরণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম জেলা শিক্ষা অফিস থেকে ইতোমধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে গ্রেডেশন লিস্ট (জ্যেষ্ঠতা তালিকা) অনুযায়ী পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সহকারী শিক্ষকদের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শূন্য আসনে প্রধান শিক্ষকের চলতি দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছিল। ইতোমধ্যে জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে চূড়ান্তভাবে পদোন্নতি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মাঠ কর্মকর্তাগণের কাছে চলতি দায়িত্বে থাকা শিক্ষকদের গ্রেডেশন তালিকাসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে। জেলা শিক্ষা অফিস থেকে অধিদপ্তরে ইতোমধ্যে এসব কাগজপত্র পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মনিটরিং অফিসার নুর মোহাম্মদ।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের তথ্যমতে, নগরী ও উপজেলায় মোট ৬৩৪ জন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক চলতি দায়িত্ব পেয়ে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। এরমধ্যে বাঁশখালী উপজেলায় ৫৭ জন, রাউজান উপজেলায় ৪৫ জন, সন্দ্বীপে ৫৫ জন, ফটিকছড়িতে ৭৯ জন, পটিয়ায় ৩৮ জন, আনোয়ারায় ১২ জন, বোয়ালখালীতে ২০ জন এবং লোহাগাড়ায় ২৪ জন, চন্দনাইশে ২৩ জন, হাটহাজারীতে ৬৩ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ৪৬ জন, মীরসরাইয়ে ৫৯ জন, সীতাকু-ে ২২ জন ও সাতকানিয়া উপজেলায় ৫১ জন সহকারী শিক্ষক চলতি দায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়া, নগরীর ডবলমুরিং থানায় চারজন, পাহাড়তলী থানায় ছয়জন, বন্দর থানায় ১৬ জন, পাঁচলাইশ থানায় ১৩ জন ও চাঁন্দগাও থানায় সাতজন সহকারী শিক্ষক চলতি দায়িত্বে আছেন। জানতে চাইলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মনিটরিং অফিসার নুর মোহাম্মদ জানান, চট্টগ্রাম জেলায় মহানগর এবং উপজেলা মিলে মোট ৬৩৪টি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদে সহকারী শিক্ষক চলতি দায়িত্ব পালন করছেন। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর আমাদের কাছ থেকে এসব তথ্য চেয়েছে। আমরা ইতোমধ্যে অধিদপ্তরে সেসব তথ্য পাঠিয়েছি। শীঘ্রই এসব শিক্ষকদের পদোন্নতির আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে অধিদপ্তর।
চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্বে থাকা প্রধান শিক্ষকদের স্থায়ীকরণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে গ্রেডেশন লিস্ট (জ্যেষ্ঠতা তালিকা) সংগ্রহ করে অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। এটা নিয়ে অধিদপ্তরের নির্দিষ্ট শাখা কাজ করছে। কাজ শেষ হলে যে কোন সময় পদোন্নতির তালিকা প্রকাশ করা হবে। হয়তো সব জেলার তালিকা একত্রে প্রকাশ করা সম্ভব হবে না। তাই পদোন্নতির তালিকা আলাদা আলাদাভাবে প্রকাশ করা হতে পারে।

About msmh msmh

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: